>
Bangla cinema, Bengali celebs, Bengali Film Gossip, Bengali Gossip

বাবাই ছিলেন ফেলুদা – সন্দীপ রায়

বিকেল চারটে। সেই পুরনো টেবিল আর চেয়ারে তিনি। চারপাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে বিভিন্ন ভাষায় ফেলুদার বই। মোবাইল নেই। প্রতিদিন এই সময়টায় জরুরি ফোনগুলো সেরে নেন ল্যান্ডলাইনে। এটাই সন্দীপ রায়ের রোজকার রুটিন। কুকি জারের প্রিয় কেক আর চায়ে চুমুক দিয়ে শুরু করলেন আড্ডা…

 

২০১৬। সত্যজিৎ রায় ‘ডাবল ফেলুদা’ বানালে কী করতেন?

(মাথা নিচু করে বেশ কিছুক্ষণ ভেবে) এখন বাবা বেঁচে থাকলে ফেলুদা করতেন না। সন্তোষদা (সন্তোষ দত্ত) চলে যাওয়ার পর বাবার ফেলুদা করার ইচ্ছেটাই চলে গেল। জটায়ু ছাড়া বাবা ফেলুদা ভাবতে পারেননি। তাও যদি দর্শকের চাহিদায় ফেলুদা করতেন তা হলে আমার মনে হয়, বাবা ফেলুদাকে আজকের সময়ের মতো করে নিশ্চয়ই বদলাতেন।

 

satyajeet roy

মানে ফেলুদার হাতে মোবাইল! হোয়াটসঅ্যাপ করতেন?

(হেসে) এটা বলা খুব মুশকিল।

কিন্তু আপনি জটায়ু ছাড়াই ফেলুদা করলেন। আর আজও ফেলুদাকে মোবাইল দিলেন না…

আমি তো ‘ছিন্নমস্তার অভিশাপ’ করতে চেয়েছিলাম। আজও চাই। কিন্তু বিশ্বাস করুন জটায়ু পাচ্ছি না। খুব সমস্যা এটা নিয়ে জানেন।

 

জটায়ুর রোলে খরাজ মুখোপাধ্যায়কে মনে হয় না?

না। আমি কনস্ট্যান্টলি জটায়ু খুঁজে বেড়াচ্ছি। নয়তো ফেলুদা আটকে যাবে।

READ ORIGINAL ARTICLE HOME PAGE

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *