>
Uncategorized

সুপ্রিয়া দেবী – আমাকে ওরা রাস্তার মেয়ে করে ছাড়ল

সব কিছুই শুরু হয়েছিল ঠিকঠাক ভাবেই… উত্তমবাবুর চরিত্রাধারিত এবং সেই সময়কার টলিপাড়ার হাল হকিকত নিয়ে লেখা সুন্দর মশালাদার স্ক্রিপ্ট! সিরিয়ালে সিনেমার কাস্টিং, মিডিয়ায় ঢালাও প্রচার, চমকের পর চমক! কিন্তু বোধহয় বাংলার জনতা তাদের প্রিয় ‘মহানায়ক’ গ্রহণ করেতে পারেনি। ঠেলে সরিয়ে দিয়েছে, যার পরিণতিতে শোচনীয় ভাবে পড়ে গিয়েছে এর টিআরপি। প্রাইম টাইমের জায়গায় এখন এর স্থান হয়েছে অসময়ের বেঘোর রাত ১১টা, তাও দেখতে আপত্তি অনেকেরই!

 

Mahanayak on Star Jalsha ! A Story To Reveal

 

একই ভাবে নিজের ঘোর আপত্তির কথা জানিয়ে দিলেন স্বয়ং সুপ্রিয়া দেবী! জঘন্য। সব মিথ্যে। ওনার চরিত্রে আধারিত “প্রিয়া” (তনুশ্রী চক্রবর্তী) একদম জাস্টিফাই করে নি সেই সময়ের সত্যিটাকে! বলেন ‘‘তাঁর চারপাশে ভিড় করতে লাগলেন ইচ্ছা-পূরণের নায়িকারা।’’ ধরে ধরে এক এক করে দেখানো হল রমাদি (সুচিত্রা সেন), সাবু (সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়) আর আমাকে। আমরা আমাদের ইচ্ছে-পূরণের জন্য উত্তমকুমারের চারপাশে ভিড় জমিয়েছিলাম? ছিঃ! এমনকি সুপ্রিয়া দেবী একধাপ এগিয়ে বলেই বসেন “আমাকে ওরা রাস্তার মেয়ে করে ছাড়ল” … যত্তোসব জঘন্য নোংরা কথা! ভাবতেও ঘেন্না করে।

 

 

Mahanayak

তিনি আর বলেন, উত্তমকুমার তুমুল ভাবে আজও জীবিত আর জনপ্রিয়। সে জায়গা দখল করার ক্ষমতা এখনও কারও হয়নি। ক্যামেরা ফেস করা দূরে থাক, ‘ব্যাক টু ক্যামেরা’ করার মতোও ‘মহানায়ক’ জন্মায়নি আজও। আর শুনুন, কেচ্ছা দিয়ে, মিথ্যে বলে সস্তার পাবলিসিটি করা যায়, কিন্তু শিল্প হয় না। তার প্রমাণ দিয়েছে দর্শক।

Source AnandaPlus

 

Mahanayak

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *