>
Uncategorized

পর্দায় মাহি-আবেগে ভাসল খড়্গপুর

সালটা ২০০১। ‘দলীপ ট্রফি’ খেলার সুযোগ পেয়েছেন ঝাড়খণ্ডের ক্রিকেটার মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। অফিসে বসে আনন্দবাজার পত্রিকায় সেই খবর পড়ছিলেন খড়্গপুরের তৎকালীন ডিআরএম অনিমেষকুমার গঙ্গোপাধ্যায়। ডাক পড়ল টিকিট পরীক্ষক সত্যপ্রকাশ কৃষ্ণের। ধোনিকে খড়্গপুরের টিকিট পরীক্ষকের চাকরির জন্য রাজি করানোর দায়িত্ব দেওয়া হল তাঁকে। রাঁচিতে গিয়ে ধোনিকে রাজি করিয়ে নিয়ে আসা হল এই রেলশহরে।

রুপোলি পর্দায় এই দৃশ্য দেখে ভরা সিনেমা হল ফেটে পড়ল হাততালিতে। সঙ্গে সিটি আর তারস্বরে আওয়াজ ধোনি… ধোনি…।

নীরজ পাণ্ডে পরিচালিত ‘এমএস ধোনি- দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ সিনেমাটি শুক্রবারই মুক্তি পেয়েছে। ছবিটিতে মিনিট কুড়ির টুকরো টুকরো দৃশ্যে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে খড়্গপুরে থাকাকালীন ধোনির জীবনযাপন। আর তা দেখতেই শহরের গেটবাজারের সিনেপ্লেক্সে ছিল উপচানো ভিড়। খোঁজ নিয়ে জানা গেল, আগামী তিন দিন বুকিং হাউজফুল। এই শহরে ধোনির বন্ধু বলে পরিচিত টিকিট পরীক্ষক সত্যপ্রকাশ কৃষ্ণ, রবিন কুমার, পুরপ্রধান প্রদীপ সরকার একসঙ্গে বসে সিনেমাটি দেখেছেন। প্রদীপকে তো সশরীরে পর্দাতেও দেখা গিয়েছে। আর সত্যপ্রকাশ ও রবিনের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন অন্য অভিনেতারা।

 

আরও পরুন HOME PAGE

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *